ফুটবলের ইতিহাসের সেরা ১০ গোলদাতা


শুধু বর্তমান সময়ে নয় ফুটবল যখন থেকে আবিষ্কৃত হয়েছে তখন থেকেই পৃথিবীতে এটি একটি জনপ্রিয় খেলা। বর্তমান সময়ে এর জনপ্রিয়তা আরো অনেক বেশি বেড়ে গেছে ফুটবলপ্রেমী সংখ্যা যেমন বেড়েছে তেমনি বেড়েছে ফুটবল খেলোয়ারদের সংখ্যাও।

আমাদের দেশ ও তার ব্যতিক্রম নয় সারা বিশ্বে ফুটবল নিয়ে অনেক আয়োজন হয়ে থাকে যেমন বিশ্বব্যাপী ক্লাব খেলা, বিশ্বকাপ খেলা এছাড়াও দেশীয়ভাবে ফুটবল খেলার আয়োজন করা হয়ে থাকে আমাদের মধ্যে প্রায় সকলেই ফুটবল খেলা পছন্দ করে। 

আজকে আমরা মূলত ফুটবলের ইতিহাসের সেরা দশ গোলদাতাদের নিয়ে আলোচনা করব আপনি যদি ফুটবলের ইতিহাসের সেরা দশ গোলদাতা সম্পর্কে জানতে চান তাহলে অবশ্যই এই লেখা টি আপনার জন্য চলুন জেনে আসি সেরা ১০ গোল দাতা সম্পর্কে।

তাহলে একনজরে দেখে নেওয়া যাক ফুটবলের ইতিহাসের সেরা ১০ গোলদাতা তালিকা:

ফুটবলের ইতিহাসের সেরা দশ গোলদাতাদের তালিকায় ক্রমান্বয়ে সাজানো হল, এইখানে যাদের নাম প্রথমে আসে তারা হচ্ছে জোসেফ বিকান,ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো, রোমারিও, পেলে, ফেরেঙ্ক পুস্কাস,লিওনেল মেসি ইত্যাদি।  চলুন তাদের সম্পর্কে জেনেনেই :

১. জোসেফ বিকান (গোল সংখ্যা: ৮০৫)

জোসেফ বিকান

ফুটবলের ইতিহাসে সর্বাধিক সুপরিচিত গোলদাতা যিনি ৮০৫ টি গোল দিয়েছে জোসেফ বিকান, একজন ফুটবলার তিনি গড়ে তুলেছে বিশ্বরেকর্ড। 

তিনি অর্জন করে নিয়েছে সর্বোচ্চ গোলদাতার উচ্চ শিখর ১৯৩০ সালের দিকের  অস্ট্রিয়ার এক তারকা তিনি। ১৯৩৪সালে বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে উঠে আসা দলের একজন সদস্য ছিলেন, তবে তিনি আসলে ১৯৫০ সাল পর্যন্ত ফুটবল খেলার সাথে জড়িত ছিল অবশেষে ৪২ বছর বয়সে অবসর গ্রহণ করেন। এখন পর্যন্ত  তার অর্জন  বিশ্বের এক নাম্বার গোলদাতা হিসেবে।

এক নাম্বার গোলদাতা হিসেবই সকলের কাছে পরিচিত হয়েছেন। কিছু দলের সদস্যরা এমনকি সর্মথকরা দাবি করেছেন যে তিনি আসলে ফুটবল খেলায় ৫০ হাজারেরও বেশি স্কোর করেছে, জোসেফ বিকান বলেছিলেন “যদি আমি বলি যে আমি পেলে চেয়ে ৫ গুণ বেশি গোল করেছে তার মানে তার গোলের পরিমাণ আরো বেশিও হতে পারে।”

সুতরাং তারা কথার মাধ্যমে তা ফুটবলের ইতিহাসে অবদান সম্পর্কে কিছুটা ধারণা পাওয়া যায়।

২.  ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো (গোল সংখ্যা: ৭৭৭) ২

ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো

একজন সুপরিচিত ফুটবল খেলোয়াড়দের মধ্যে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো উল্লেখযোগ্য একজন ব্যক্তি যার নাম বা পরিচয় বলার অপেক্ষা রাখেনা পর্তুগীজ সুপারস্টার বললেও তাকে চলে। ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো সময়ের সাথে সাথে নিজেকে করে তুলেছে একজন গোলমেশিন, গড়ে তুলেছেন বিশ্বের বিস্ময়।

আপনি জানেন কি? ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো ক্যারিয়ারের সময়ে কোটিপতি হওয়া ফুটবলারদের মধ্যে ইতিহাসে প্রথম ফুটবলার। ফুটবলের ইতিহাসে সর্বাধিক গোলদাতা খেলোয়াড়দের মধ্যে দ্বিতীয়তে জায়গা করেছেন তিনি খুব অল্প সময়ে ৭৭৭ মাধ্যমে তিনি ফুটবল ইতিহাসে সেরা গোলদাতা দের মধ্যে দুই নাম্বারে চলে এসেছেন।

পর্তুগিজদের সুপারস্টার একের পর এক রেকর্ড করে যাচ্ছেন যা পুরো ফুটবল বিশ্ব এনে দিয়েছে অনেক অর্জন।

৩.রোমারিও (গোল সংখ্যা:  ৭৭২)

রোমারিও

রোমারিও দে সুজা ফারিয়া, কেবল রোমারিও নামে পরিচিত, তিনি একজন ব্রাজিলিয়ান রাজনীতিবিদ যিনি এর আগে পেশাদার ফুটবলার হিসাবে বিশ্বব্যাপী খ্যাতি অর্জন করেছিলেন। ক্লিনিকাল ফিনিশিংয়ের জন্য খ্যাতিমান এক প্রসিদ্ধ স্ট্রাইকার, তিনি সর্বকালের সেরা খেলোয়াড় হিসাবে বিবেচিত।

ফুটবলের সর্বোচ্চ গোলদাতাদের নাম বলতে হলে আরেক জনের খেলোয়াড়ের নাম না বললেই নয়। যিনি সর্বোচ্চ গোলদাতা তাদের মধ্যে তিন নম্বরে রয়েছেন তিনি হচ্ছেন রোমারিও, তিনি সর্বমোট ৭৭২ গোল দিয়েছেন।

ব্রাজিলের কিংবদন্তি রোনালদো বলেছেন তিনি সাবেক কোচ জহান ক্রুইফ এর ” প্রতিভা” হিসেবে বর্ণিত। রোমিওর কাছে থেকে গোল কোডিংয়ের শিল্প সম্পর্কে শিখেছিলেন রোনালদো। প্রকৃতপক্ষে তিনি একজন অন্যতম ক্লিনিক্যাল ফিনিশার খেলোয়াড় ৭৭২ রেকর্ড করেছিলেন।

৪. পেলে (গোল সংখ্যা: ৭৬৭)

 পেলে

পেলে নামে পরিচিত এডসন আরান্তেস ড্যাস ন্যাসিমেণ্টো, একজন ব্রাজিলিয়ান প্রাক্তন পেশাদার ফুটবলার যিনি ফরোয়ার্ড হিসাবে খেলেছিলেন।

অন্যতম সেরা খেলোয়াড় হিসাবে পরিচিত এবং ফিফার দ্বারা “সর্বশ্রেষ্ঠ” হিসাবে চিহ্নিত, তিনি বিংশ শতাব্দীর সবচেয়ে সফল এবং জনপ্রিয় ক্রীড়া ব্যক্তিত্বদের মধ্যে ছিলেন।

সর্বকালের শ্রেষ্ঠ ফুটবল খেলোয়াড় হিসেবে আমাদের সকলের কাছেই একটি পরিচিত নাম হচ্ছে পেলে। যার নাম ফুটবল ইতিহাসে স্বর্ণাক্ষরে মুদ্রিত আমরা সকলেই তাঁর ফুটবল খেলার যোগ্যতা ও দক্ষতা সম্পর্কে অবগত ব্রাজিলের সাথে তিনবার বিশ্বকাপ জয়ী এই খেলোয়াড় ফুটবলের ইতিহাসে সর্বোচ্চ গোলদাতা দের মধ্যে নিজেকে করে নিয়েছে চতুর্থতম।

তার খেলা অন্যতম কিছু সৌন্দর্য এবং বৈশিষ্ট্য রয়েছে যা তার ফুটবল খেলাকে করে তুলেছে মানুষের কাছে আরও বেশি গ্রহণযোগ্য এবং দেশকে করে দিয়েছে বিশ্বের কাছে পরিচিত। ব্রাজিলের খেলোয়াড় হিসেবে পরিচিত ৭৬৭ গোল করে তিনি অবস্থান তৈরি করেছেন ।

 ৫. ফেরেঙ্ক পুস্কাস (গোল সংখ্যা:  ৭৪৬)

ফেরেঙ্ক পুস্কাস

ফেরেঙ্ক পুস্কাস ছিলেন একজন হাঙ্গেরিয়ান ফুটবলার এবং পরিচালক, সর্বকালের সর্বকালের সেরা খেলোয়াড় এবং খেলাধুলার প্রথম আন্তর্জাতিক সুপারস্টার হিসাবে বহুল পরিচিত ।

ফেরেঙ্ক পুস্কাস ‘দ্য গ্যালোপিং মেজর’ নামে পরিচিত ছিলেন। তিনি ফুটবল ইতিহাসের দুটি সেরা অবস্থানের একজন মূল ব্যক্তি। তিনি হাঙ্গেরির ‘ম্যাগনিফিকেন্ট ম্যাজায়ারস’ কাপ এবং রিয়াল মাদ্রিদতে ১৯৬০ সালের ইউরোপীয় কাপের বিজয়ী হন ।

তিনি খুব বেশি লম্বা না হলেও দেখতে ছিলেন সুদৃশ্য। যদিও তার ডান পায়ে তেমন শক্ত ছিল না, তবে তার বামটি একটি কামান ছিল এবং এটির সাহায্যে তিনি তার ৭৪৬ গোলের সর্বাধিক গোল করেছিলেন, যা মাত্র ৭৫৪ খেলায় অংশগহন করেই যা ইতিহাসে বিরল। 

 ৬. লিওনেল মেসি (গোল সংখ্যা: ৭৪৬)

লিওনেল মেসি

ইতিহাসের সর্বশ্রেষ্ঠ খেলোয়াড় হিসাবে সম্মানিত লিওনেল মেসি, যিনি সকলের কাছেই সুপরিচিত যা বলার অপেক্ষা রাখে না, আজ অবধি লিওনেল মেসি একজন খেলোয়াড় যিনি আর্জেন্টিনা ৯৪৬ রানের ব্যবধানে ৭৪২ গোল করেছে তৈরী করেছে নতুন রেকর্ড ।

পক্ষান্তরে, তিনি ফুটবল খেলায় তিরিশের দশকে প্রবেশ করেছেন মেসি যুক্তিযুক্তভাবে আগের চেয়ে আরও পরিপূর্ণ ও জনকপ্রিয় হয়ে উঠছে। তিনি ফুটবল খেলার একজন বিশিষ্ট ব্যক্তি। গোলকিপিং গ্রেট গিগি বাফন এর মতে   “এলিয়েন” হিসাবে বিবেচিত কারণ সকল খেলোয়াড়ই তার খেলায় অনেক বেশি অবাক হয়েছেন ।

 ৭. গার্ড মুলার (গোল সংখ্যা:  ৭৩৫)

গার্ড মুলার

একজন সর্বোচ্চ পিকার হিসেবে আমরা যার নাম আমাদরে সামনে চলে তিনি হচ্ছে গার্ড মুলার, তিনি পেনাল্টি অঞ্চলে শিকারী প্রবৃত্তিগুলির জন্য খ্যাতিমান ।

গার্ড মুলার একজন জার্মান প্রাক্তন পেশাদার ফুটবলার, তাঁর ক্লিনিকাল ফিনিশিংয়ের জন্য খ্যাতিমান এক স্ট্রাইকার, বিশেষত ছয় গজ বক্সের আশেপাশে এবং তিনি সর্বকালের সেরা খেলোয়াড় এবং গোলদাতা হিসাবে বিবেচিত।

তিনি জার্মানিতে বায়ার্ন মিউনিখ আইকন হিসেবে পরিচিত আছেন, যিনি ১৯৭৪সালে জার্মান বিশ্বকাপ ফাইনালে পশ্চিম জার্মানির হয়ে জয়ী হয়েছিলেন, তিনি আন্তর্জাতিক স্তরের (মাত্র ৬২ ম্যাচে ৬৮ টি গোল) গোলের চেয়ে বেশি গড় গড়েছিলেন।

 বিশেষ আশীর্বাদ যুক্ত খেলোয়াড় হিসেবও তিনি পরিচিত। কেবল ৭৯৩ ম্যাচে ৭৩৫টি গোলের সামগ্রিক রেকর্ড এর অধিকারি তিনি।

 ৮. ইউসেবিও (গোল সংখ্যা:  ৬২৩)

ইউসেবিও

পর্তুগালের একজন সুপরিচিত খেলোয়াড় হিসেবে পরিচিত, ইউসেবিও ১৯৬০ এবং ১৯৭০ এর দশকের অন্যতম সেরা গোলদাতা ছিলেন, তিনি একটি বেনফিকা সাইড এর পক্ষে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন যা ঘরোয়াভাবে ইউরোপকে আধিপত্য বিস্তার করেছিল এবং জয় করেছিল।

তার এই জয় এখনো সকল ফুটবল প্রেমীদের কাছে স্মরণীয়। ইউসেবিওর জ্বলজ্বল গুণাবলী এর কারণে অনেক সময়  তিনি পেলে চেয়ে আরও ভাল খেলোয়াড় ছিলেন বলে বোঝানোর মতো কিছুই নেই। ইউসেবিও সম্পর্কে যদি একটি প্রশংসনীয় দিক ছিল এবং তার সামগ্রিক খেলাটি হ’ল তিনি পেলের চেয়ে অনেক বেশি মারাত্মক ফিনিশার ছিলেন।

 ইউসেবিও হচ্ছেন লিসবনের এক প্রতিমূর্তি, বিশ্বজুড়ে ভক্তদের স্মরণে রাখতে তাকে এবং তার অবদানকে। ইউসেবিও ৬৩৯ টি ফুটবল খেলায় অংশ নিয়ে ৬২৩ টি গোল করেছেন, যা ফুটবল প্রেমীদের একটি অবিশ্বাস্য গৌরবের বিষয়।

৯. ফেরেন্স ডেক (গোল সংখ্যা: ৫৭৬)

ফেরেন্স ডেক

ফেরেন্স ডেক কৃতিত্বগুলি তার স্বদেশী ফেরেনক পুস্কাসের দ্বারা ছায়া পেয়ে থাকতে পারে তবে ফেরেন্স ডেক তার নিজের মতো করে দুর্দান্ত খেলোয়াড় ছিলেন।

তিনি ফারেনকভারোসে যোগ দেওয়ার আগে, প্রথম ক্লাব সেজেন্ট্লোরিঞ্চি এসি এর পক্ষে তিনটি গোলের রেকর্ড করেন।

তিনি তার দেশের হয়ে ২৯ টি গোলও করেছেন এবং সর্বোচ্চ স্তরে তিনি কত ম্যাচ খেলেছেন তা এখনও জানা যায়নি, তিনি মোট ক্যারিয়ারের সমাপ্তি করেছিলেন ৫৭৬ গোল এর মাধ্যমে সাথে।

১০. উওয়ে সেলার (গোল সংখ্যা: ৫৭৫)

উওয়ে সেলার কে বায়ু শক্তি হিসেবে বিখ্যাত, হামবুর্গের আইকন উউই সিলার জার্মানি যে অন্যতম সেরা ফরোয়ার্ড তৈরি করেছে এবং ক্লাব এবং দেশের উভয়ের জন্যই অবিশ্বাস্যভাবে নির্ভরযোগ্য একটি লক্ষ্য।

তিনি একজন জার্মান প্রাক্তন ফুটবলার এবং ফুটবল কর্মকর্তা। স্ট্রাইকার হিসাবে তিনি হ্যামবার্গার এসভি-র পক্ষে দুর্দান্ত স্কোরার ছিলেন এবং পশ্চিম জার্মান জাতীয় দলের হয়ে ৭২ জন উপস্থিতিও করেছিলেন।

তিনি সর্বমোট ৫৭৫ টি গোলের এর মাধ্যমে রেকর্ড করেছিলেন। তার খেলার মাধ্যমে তিনি ফুটবলকে নিয়ে গেছেন এক বিশেষ জায়গায়। তার অবদান ফুটবল জগৎকে আলোকিত করেছে।

শেষ কথা:

এই লিখার মাধ্যমে ফুটবলের ইতিহাসের সেরা দশ গোলদাতার সম্পর্কে এবং তাদের গোল সংখ্যা সম্পর্কে সঠিক ধারণা পাওয়া যাবে। 

শুধু বর্তমানের নয় ফুটবল পর্ব ইতিহাসেও অনেক জনকপ্রিয় একটি খেলা, বিশ্বের সকল দেশেই এই খেলায় চর্চা হয়ে থাকে। যা আমাদের দেশেও অনেক পরিচিত। এই প্রবন্ধের মাধম্যে সহজেই সর্বোচ্চ গোলদাতা সম্পকে জানা যায়।

Explore More:

বিশ্বের দুর্ধর্ষ ১০ গোয়েন্দা সংস্থা, শীর্ষে রয়েছে মোসাদ

বিশ্বের সেরা ১০ কভার্ট অপারেশন যাদের নামে শিউরে উঠে বিশ্ব

Recent Posts